সাড়ে ৩ কোটি টাকার আয়কর ফাঁকি দিয়েছেন এ আর রহমান

এ আর রহমান

অস্কার জয়ী গায়ক ও সংগীত পরিচালক এ আর রহমান। তাকে ভারতবাসী সংগীতের ঈশ্বর বলেন সম্মান জানাতে গিয়ে। সেই ঈশ্বরের নামে এবার নোটিশ এলো কর ফাঁকি দেয়ার। মাদ্রাজ হাইকোর্ট এ নোটিশ পাঠিয়েছে।

যেখানে বলা হয়েছে ২০১১-১২ আর্থিকবর্ষে এ আর রহমান বড় অঙ্কের কর ফাঁকি দিয়েছেন। সেই অঙ্কের পরিমাণ প্রায় সাড়ে ৩ কোটি টাকা। দীর্ঘদিনের বকেয়া আয়কর পাওয়ার জন্য মাদ্রাজ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় আয়কর বিভাগ। তার ভিত্তিতেই এ আর রহমানকে নোটিশ পাঠায় আদালত।

আয়কর দফতরের দাবি, ২০১১-১২ আর্থিকবর্ষে ব্রিটেনের একটি টেলিকম কোম্পানির সঙ্গে গায়কের চুক্তি হয়। ওই কোম্পানিটির জন্য রিংটোন বানিয়েছিলেন এ আর রহমান। যাতে গায়কের আয় হয় ৩.৪৭ কোটি টাকা। আয়কর দফতরের অভিযোগ, কর ফাঁকি দেওয়ার জন্য গায়ক ওই টাকা সরাসরি নিজের অ্যাকাউন্টে না নিয়ে নিজের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার অ্যাকাউন্টে নেন।

আয়কর দফতরের দাবি, ‘এ আর রহমান যে আয় করেছেন, তার কর যোগ্য। ওই ৩.৪৭ কোটি টাকা আয়ের যে কর হয়, তা দিয়ে তবেই গায়ক বাকি টাকা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থায় দিতে পারেন। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার আয়ে আয়কর ছাড় থাকায় এই টাকা ওই দাতব্য় সংস্থার মাধ্যমে আদান-প্রদান করা যাবে না।’

এ আর রহমান

রহমান সেটা না করে সরাসরি মাধ্যমে সংস্থার অ্যাকাউন্টে টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ। সে কারণেই আয়কর দফতর মাদ্রাজ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। বিচারপতি টি এস শিবাগনানম এবং ভি ভাবনানি সুব্বারোয়ানের ডিভিশন বেঞ্চে রহমানকে নোটিশ পাঠায়।

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে এ আর রহমানকে সেন্ট্রাল এক্সাইজ এবং GST বাবদ ও জরিমানা মিলিয়ে ৬.৭৯ কোটি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল আয়কর দপ্তর। সেই নির্দেশে সাময়িকভাবে স্থগিতাদেশ জারি করেছিল মাদ্রাজ হাই কোর্ট।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*